আসসালামু আলাইকুম, প্রিয় শিক্ষার্থী এবং অভিভাবক বৃন্দ আপনাদের জন্য সুখবর। উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীর জন্য আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি নিয়ে এসেছে প্রতিবছরের ন্যায়। আমাদের এই আর্টিকেলে জানতে পারবেন, কিভাবে আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তির জন্য আবেদন করবেন, কি কি ডকুমেন্টস লাগে, কত টাকা পাবেন, কত বছরের জন্য এই বৃত্তি পাওয়া যাবে? বিস্তারিত জানতে আমাদের লেখা সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়বেন।। কোন বিষয় বুঝতে সমস্যা হলে আমাদের ফেজবুক পেজে ফলো করে ইনবক্স করুন।

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি (উচ্চ মাধ্যমিক স্তর)

“উচ্চ শিক্ষার অগ্রগতি আনতে আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি Al Arafah Islami Bank Scholarship নিয়ে কাজ করছে এই প্রতিষ্ঠানটি। সমাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে সারা দেশজুড়ে শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংকিং-এর আলো ছড়িয়ে অসচ্ছল পরিবার গুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য উচ্চ শিক্ষা বৃত্তি এনেছে।

বেশ কয়েক বছর ধরে আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড গরিব পরিবারের ছাত্রদের জন্য শিক্ষা বৃত্তি নিয়ে কাজ করছেন। বাংলাদেশের উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী শিক্ষার্থীরা ‘আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি’ এর সহায়তায় উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে গড়ে তুলুন সম্ভাবনাময় আগামী।

আরো পড়ুনঃ

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি Al Arafah Islami Bank Scholarship আবেদনের যোগ্যতাঃ

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা 
বৃত্তির জন্য আবেদনের যোগ্যতাঃ

বিভাগীয় শহর বা সিটি কর্পোরেশন এলাকার শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে ও অন্যান্য বিভাগের ক্ষেত্রে জিপিএ-৪.৮০পেতে হবে।

সিটি কর্পোরেশন এলাকার বাইরের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৪.৮০ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। এছাড়া অন্যান্য বিভাগের ক্ষেত্রে জিপিএ-৪.৫০ উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীগণ আবেদন করতে পারবেন।

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের কত টাকা করে দেওয়া হবে এবং কত বছর পর্যন্ত পাবে?

বৃত্তির টাকার পরিমাণ ও সময়কালঃ
শিক্ষা স্তরঃ স্নাতক পর্যায়ে মাসিক ৩৫০০ টাকা।সময়কালঃ ৩-৫ বছর (নবায়নযোগ্য)। এছাড়া পোশাক পরিচ্ছেদের জন্য ৩৫০০ টাকা এবং পাঠ্য উপকরণের জন্য (এককালীন) ৮,০০০ টাকা দেওয়া হয়।

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তির জন্য আবেদনের নিয়মাবলী(Al Arafah Islami Bank Scholarship Applying Rules)

• যে সকল শিক্ষার্থী যেকোন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান যেমনঃ ব্যাংক, এনজিও, বিভিন্ন দাতা সংস্থা উৎস হতে বৃত্তি পাচ্ছেন। অথবা সরকারি বৃত্তি পাচ্ছেন, তারা আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের শিক্ষা বৃত্তির জন্য আবেদন করবেন না।

• গ্রামীণ/ অনগ্রসর এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তির শতকরা ৭০% নির্ধারিত হইবে। এছাড়া আদিবাসী এলাকায় অবস্থিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তির শতকরা ৭০ ভাগ নির্ধারিত থাকবে।

• প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য ৫% বৃত্তি সংরক্ষিত থাকবে।

• যে সকল আবেদনকারী শিক্ষার্থীদের পিতা-মাতা/ অভিভাবকের মাসিক ২০ হাজার টাকা হিসাবে বাৎসরিক আয় ২,৪০,০০০/- (দুই লক্ষ চল্লিশ হাজার) টাকার ঊর্ধ্বে হয়, সেসব শিক্ষার্থীদের আবেদনপত্র গৃহীত হবে না।

• শিক্ষা বৃত্তির সার্কুলারটি দেখতে এবং আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন-

• শিক্ষা বৃত্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে ক্লিক করুন- এখানে

• বর্ণিত যোগ্যতা এবং শর্তাবলির কোনো একটি অসম্পূর্ণ থাকলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

• সরাসরি/ ডাকযোগে/ কুরিয়ারযোগে কোনো আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না।

• নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

• যে সকল শিক্ষার্থী আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের শিক্ষা বৃত্তির জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হবেন, বৃত্তির অর্থ গ্রহণের পূর্বে তাদেরকে অবশ্যই ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে  উল্লেখিত শিক্ষাবর্ষের সরকার অনুমোদিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্নাতক/ সমমান পর্যায়ে ভর্তির প্রমাণপত্র উপস্থাপন করতে হবে।

পরিশেষে আপনাদের বলব, Al Arafah Islami Bank Scholarship গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীরা পেলে খুবই উপকৃত হবেন। তাই আপনার এলাকার গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করবেন আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষা বৃত্তি এর জন্য আবেদন করতে।

Post a Comment

Previous Post Next Post